বাংলাদেশ

বন্ধুকে উদ্ধার করতে গিয়ে প্রেমিকার বাড়িতে যুবক খুন

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পাঁচবাড়িয়া গ্রামে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার আলাইয়াপুর ইউনিয়নে পারভেজ হোসেন (২৪) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও চারজন।
নিহত পারভেজ হোসেন আলাইয়াপুর ইউনিয়নের আক্তাররামপুর গ্রামের রহিম উদ্দিনের ছেলে। আহতরা হচ্ছেন, উপজেলার রুদ্রপুর গ্রামের নজির আহমদের ছেলে রিয়াদ হোসেন (২৭), পারভেজ (২৫) ও হেঞ্জু মিয়ার ছেলে আজাদ হোসেন (৩২)সহ চার জন।
আহতরা জানান, বেগমগঞ্জের রুদ্রপুর গ্রামের নজির আহমদের ছেলে মো. সুজন (১৮) এর সাথে পাঁচবাড়িয়া গ্রামের শাহ আলমের মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এই সম্পর্কের সূত্র ধরে সোমবার রাতে মোবাইল ফোনে সুজনকে বাড়িতে ডেকে নেয় শাহ আলমের মেয়ে। কল পেয়ে রাতে সেখানে গেলে সুজনকে আটক করে শাহ আলম ও তার পরিবারের লোকজন। খবর পেয়ে রাতে সুজনের বড় ভাই রিয়াদ হোসেন ঘটনাস্থলে গেলে মেয়ের পরিবারের লোকজন তাদের কাছে টাকা দাবি করে অন্যথায় তাদের মেয়েকে বিয়ে করতে হবে বলে প্রস্তাব দেয়।

ওই ঘটনার জের ধরে মঙ্গলবার সকালে সুজনের বন্ধু পারভেজসহ আত্মীয়-স্বজনরা পুনরায় সুজনকে উদ্ধার করতে গেলে ক্ষিপ্ত হয় প্রেমিকার বাবা শাহ আলমসহ পরিবারের লোকজন। এক পর্যায়ে শাহ আলম ও তার পরিবারের লোকজন সুজনের বন্ধু ও আত্মীয়দের ওপর হামলা চালায়। এ সময় এলোপাথাড়ি কুপিয়ে পারভেজসহ অন্তত ৫জনকে আহত করে। পরে আহতদের উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক পারভেজকে মৃত ঘোষণা করেন। অন্যদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
এ বিষয়ে বেগমগঞ্জ থানার ওসি কামরুজ্জামান সিকদার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সম্পর্কিত

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button