বাংলাদেশ

বোনকে বাঁচাতে ভাইয়ের প্রাণপণ চেষ্টা

মামার বাড়ি যাচ্ছিল মেয়েটি। পথে বখাটেরা তার পথ আটকায়। ফিরে আসতে চাইলেও পারছিল না। বখাটেরা লাঠি দিয়ে তাকে আঘাত করছিল। দূর থেকে দৃশ্যটি দেখতে পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় মেয়েটির ভাই। বোনকে লাঠির আঘাত থেকে রক্ষা করতে জড়িয়ে ধরেন তিনি। এ সময় বখাটেরা বেধড়ক মারধর শুরু করলে ভাই-বোন দুজনেই মাটিতে পড়ে যায়। তবুও থামছিল না তাদের মারধর। গত শনিবার এমন একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে।
গত ৩১ মে কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুশকুল ইউনিয়নের বেড়িবাঁধ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সেদিন ছোট বোনকে উত্ত্যক্ত করায় প্রতিবাদ করতে গিয়ে বখাটেদের মারধরের শিকার হন আবদুল মোনাফ নামের ওই তরুণ।
মারধরের শিকার আবদুল মোনাফ বলেন, খুরুশকুল আশ্রয়ণ প্রকল্পে আমরা একটা ফ্ল্যাট পেয়েছি। আমাদের বাবা মারা গেছেন। ৩১ মে আমার বোন মামার বাড়ি যাচ্ছিল। পথে খুরুশকুল মনুপাড়ার জামাল-রায়হানরা আমার বোনকে উত্ত্যক্ত করে। এ সময় সে বাসায় ফিরে আসতে চাইলে বখাটেরা পথ আটকায়। প্রকল্প থেকে দৃশ্যটি দেখতে পেয়ে সেখানে যাই। বোনকে উত্ত্যক্তের কারণ জানতে চাই। এ সময় তারা আমার বোনকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে। তখন বোনকে বাঁচাতে জড়িয়ে ধরি। এ অবস্থায় আমাকেও মারধর করে তারা।
কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মুনীর উল গীয়াস বলেন, ভাইরাল ভিডিওর সূত্র ধরে আজ রোববার ভোরে কিশোর গ্যাংয়ের দুই সদস্য রায়হান ও আরমানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। সবকিছু খতিয়ে দেখে এ বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
ওসি শেখ মুনীর উল গীয়াস অভিযোগ করেন, মোনাফ ৩১ মে থানায় অভিযোগ দিলেও বোনকে উত্ত্যক্ত ও মারধরের কথা এড়িয়ে যান। তিনি ছিনতাইয়ের অভিযোগ করেছিলেন। তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে কোনো সদুত্তর দেননি মোনাফ।

সম্পর্কিত

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button