বাংলাদেশ

মেহেরপুরের গাংনীতে স্বামীকে ‘পিটিয়ে হত্যা’, স্ত্রী গ্রেপ্তার

মেহেরপুরের গাংনীতে শ্বশুরবাড়ির লোকদের নির্যাতনে সাইফুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তির মৃত্যুর অভিযোগে তার স্ত্রী রোজিনা খাতুনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার গাংনী হাসপাতাল বাজার থেকে রোজিনা খাতুনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
নিহত সাইফুল ইসলাম বামুন্দী নিশিপুর গ্রামের ভাদু মন্ডলের ছেলে। গত মঙ্গলবার ভোরে দেবিপুর গ্রামে শ্বশুর আতাহার আলীর বাড়িতে সাইফুলকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। পরে গতকাল বুধবার ভোরে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তাকে হত্যার অভিযোগে স্ত্রী রোজিনাসহ আটজনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন সাইফুলের ভাই শরিফুল ইসলাম। এ মামলায় প্রধান আসামি রোজিনা খাতুন।
গাংনী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সাজেদুল ইসলাম জানান, সাইফুলকে হত্যার অভিযোগে তার ভাই বাদী হয়ে রোজিনা খাতুনকে ১ নম্বর আসামি করে আটজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।
গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর রহমান জানান, সাইফুল ইসলাম হত্যা মামলার প্রধান আসামি তার স্ত্রী রোজিনা খাতুনকে গাংনী হাসপাতাল বাজার থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ছাড়া মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। মামলা তদন্ত শেষে আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হবে। এ ছাড়া কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে সাইফুলের লাশ তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সম্পর্কিত

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button