ক্রিকেট

১০ ওভারে অল-আউট হয়ে তুরস্কের রেকর্ড ছুঁল বাংলাদেশ!

শিরোনাম দেখেই পাঠকরা মনে হয় চমকে উঠেছেন, তুরস্কও ক্রিকেট খেলে! এটা বাজি ধরে বলা যায়, ক্রিকেটপ্রেমীদের প্রায় ৯৯ শতাংশই জানে না যে তুরস্ক ক্রিকেট খেলে। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে তাদের লজ্জার কিছু রেকর্ডও আছে। এমন অচেনা দলের লজ্জার রেকর্ড থাকা অস্বাভাবিক নয়। কিন্তু সেই অচেনা দলের লজ্জার রেকর্ডে যদি বাংলাদেশের মতো ২০ বছর ধরে টেস্ট খেলা দেশ ভাগ বসায়, তখন চোখ কপালে ওঠে বৈকি। আজ অকল্যান্ডে এমন লজ্জার কীর্তিই গড়েছেন লিটন-শান্তরা।

টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে কম রানে অল-আউট হওয়ার তিনটি ইনিংস কিন্তু তুরস্কের। ২০১৯ সালের ২৯ আগস্ট রোমানিয়ার ইফলভ কাউন্টি স্টেডিয়ামে কন্টিনেন্টাল কাপের ম্যাচে লুক্সেমবার্গের বিপক্ষে তারা ২৮ রানে অল-আউট হয়। পরের দিন একই মাঠে চেক প্রজাতন্ত্রের বিপক্ষে ২১ রানে অল-আউট হয়। এবং তার পরের দিন অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে সেদিন ৩২ রানে থেমেছে তুরস্ক। বাংলাদেশ তো এত কম রানে অল-আউট হয়নি, তবে একটা রেকর্ড টাইগাররা এখন তুরস্কের ‘সমব্যথী’।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে শুধু সবচেয়ে কম দলীয় রানই নয়; ১০ ওভারের নিচে অল-আউট হওয়া দলটার নামও তুরস্ক! এখন পর্যন্ত আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এমন কীর্তি আছে মাত্র তিনটি। এর মধ্যে তুরস্কের ২১ রানের ইনিংসটি শেষ হয়েছে ৮.৩ ওভারে আর ৩২ রানের ম্যাচে অল-আউট হয়েছে ৮.৫ ওভারে। আজ বাংলাদেশ গড়ল ইতিহাসের তৃতীয় কীর্তি! নিউজিল্যান্ডের ১৪১ রান তাড়া করতে নেমে লিটন দাসের দল ৯.৩ ওভারে ৭৬ রানে অল-আউট হয়েছে। এই লজ্জা কোথায় রাখবে টাইগাররা?

সম্পর্কিত

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button