বাংলাদেশ

টিকা নিলেন ৬ মন্ত্রী

সারা দেশে একযোগে শুরু হয়েছে করোনা ভাইরাসের টিকা প্রদান কার্যক্রম। আজ সকালে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট কেন্দ্রের এক নম্বর বুথে টিকা নিয়েছেন ৬ মন্ত্রী। সকাল ১০টায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কার্যালয় থেকে সারা দেশের কেন্দ্রগুলোর সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক। এরপর তিনি শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট কেন্দ্রের এক নম্বর বুথে গিয়ে তিনি টিকা নেন। একই বুথে টিকা নেন কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, মৎস্য ও পশুসম্পদ মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম, বনমন্ত্রী শাহাবউদ্দিন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান ও জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। মন্ত্রীদের টিকা দেন হাসপাতালের সিনিয়র নার্স আরজিনা। টিকা নেয়ার পর মৎস্য ও পশুসম্পদ মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম সাংবাদিকদের বলেন, করোনা টিকা নিয়ে আর কোন সন্দেহ বা সংশয় নেই। করোনা থেকে বাঁচতে সবাইকে টিকা নেয়ার আহ্বান জানান তিনি।
এদিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টিকা নেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।
ওদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল (বিএসএমএমইউ) কেন্দ্রে টিকা নিয়েছেন বিচারপতি, চিকিৎসকসহ অন্যান্য পেশার মানুষরা।
এদিকে দেশের ১০০৫টি হাসপাতালে স্থাপিত কেন্দ্রে টিকা দেয়া শুরু হয়েছে। টিকা নিতে গতকাল বিকাল আড়াইটা পর্যন্ত ৩ লাখ ২৮ হাজার ১৩ জন নিবন্ধন করেছেন। সরকার প্রথম মাসে ৩৫ লাখ মানুষকে ভ্যাকসিন দেয়ার পরিকল্পনা করেছে। সে অনুযায়ী প্রতিদিন এক লাখের বেশি মানুষকে ভ্যাকসিন দিতে হবে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জানান, ঢাকাসহ সারা দেশের এক হাজার ৫টি হাসপাতালে ৭ই ফেব্রুয়ারি থেকে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) টিকা প্রদান কার্যক্রম একযোগে শুরু হচ্ছে। ঢাকায় ৫০টি হাসপাতালে ২০৪টি দল ভ্যাকসিন দিতে কাজ করবে। ঢাকার বাইরে ৯৯৫টি হাসপাতালে কাজ করবে ২ হাজার ১৯৬টি দল।

সম্পর্কিত

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button